Facebook অ্যাপেই ভয়েস ও ভিডিও কল সুবিধা পাবেন

খুব শীঘ্রই হয়তো সরাসরি ফেইসবুকের মূল অ্যাপ থেকেই ভয়েস ও ভিডিও কল করা যাবে। মূল অ্যাপে এ বিষয়টি পরীক্ষা করে দেখছে ফেইসবুক। এরই মধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে কিছু ব্যবহারকারীর হাতে সুবিধাটি তুলে দিয়েছে মার্কিন এ সামাজিক মাধ্যম।

স্ট্যান্ডঅ্যালোন অ্যাপ মেসেঞ্জার না খুলেই ব্যবহারকারীরা যাতে কল করতে পারেন, সেটাই নিয়ে আসার চেষ্টা করছে প্রতিষ্ঠানটি। রয়টার্সের প্রতিবেদন বলছে, ভবিষ্যতে হোয়াটসঅ্যাপের সেবাকেও এভাবে মূল অ্যাপে জুড়ে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে ফেইসবুকের।

শুরুতে ফেইসবুক ও মেসেঞ্জার সেবা একত্রেই ছিল। পরে ফেইসবুক দুটি সেবাকে আলাদা করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। ফলে ব্যবহারকারীদের ফেইসবুক ব্রাউজ করতে এবং মেসেজ পাঠাতে ও কল করতে দুটি অ্যাপ নামাতে হয়েছে এতোদিন।

ফেইসবুক অবশ্য অনেকদিন ধরেই নিজ মালিকানাধীন অ্যাপগুলোর মধ্যে ক্রস মেসেজিং সেবা চালুর চেষ্টা করছে। গত সেপ্টেম্বরে ইনস্টাগ্রাম ও মেসেঞ্জারের মধ্যে মেসেজিং সেবা দেওয়া শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। এতে করে ইনস্টাগ্রাম ও মেসেঞ্জার ব্যবহারকারীরা বাড়তি কোনো অ্যাপ ডাউনলোড ছাড়াই একে অন্যকে খুঁজে পাচ্ছেন, মেসেজ পাঠাতে পারছেন, এমনকি প্রয়োজনে একে অন্যের সঙ্গে ভিডিও কলেও কথা বলতে পারছেন।

মূল অ্যাপে কল ও ভিডিও সেবা আনলেও মেসেঞ্জারের গুরুত্ব হয়তো আগের মতোই থাকবে। সোমবার এক ফেইসবুক মুখপাত্র ব্যবহারকারীদেরকে পরিপূর্ণ মেসেজিং, অডিও এবং ভিডিও কল অভিজ্ঞতার জন্য মেসেঞ্জার ব্যবহার অব্যাহত রাখার পরামর্শ দিয়েছেন।

কিছুদিন আগেই মেসেঞ্জারের ভয়েস ও ভিডিও কলের জন্য এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন সেবা নিয়ে এসেছে ফেইসবুক। ফলে প্রেরক ও প্রাপক বাদে আর কারো পক্ষে মেসেঞ্জারের ভয়েস ও ভিডিও কল শোনা সম্ভব হবে না। এমনকি ব্যবহারকারীদের ভয়েস ও ভিডিও কল শুনতে পারবে না ফেইসবুক নিজেও।