যে কারণে ফেসবুক বিভ্রাট

৭ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর চালু হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম। সোমবার রাত ৯টার দিকে দেখা দেয় বিপত্তি। বিশ্বজুড়েই বন্ধ হয়ে যায় হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম সেবা। অবশেষে মঙ্গলবার ভোর ৪টার পর চালু হয়েছে এসব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। এই বিপত্তির জন্য ফেসবুকের পক্ষ থেকে রাউটার বিভ্রাটকে দায়ী করা হয়েছে। খবর এবিপি আনন্দের।

খবরে বলা হয়, এই ঘটনার জন্য ফেসবুকের সিইও মার্ক জাকারবার্গ ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ এবং ইনস্টাগ্রামের সেবায় বিঘ্ন ঘটার জন্য ক্ষমা চেয়েছেন। মার্ক লেখেন, ‘এই ব্যাঘাত ঘটায় আমি অত্যন্ত দুঃখিত। আমি জানি আমাদের এই সেবার ওপর বিপুল সংখ্যক ব্যক্তি নির্ভর করে থাকেন।’

সোমবারই পুঁজিবাজারে ফেসবুকের শেয়ারের দরপতন ঘটে ৫ শতাংশ। যার ফলে আধাবেলায় ৬০০ কোটি ডলারের বেশি সম্পদ খোয়াতে হয়েছে মার্ক জাকারবার্গের।

এই প্রেক্ষিতে হোয়াটসঅ্যাপ ও ফেসবুক সংস্থার তরফে ক্ষমা চেয়ে টুইটও করা হয়েছে। হোয়াটসঅ্যাপের তরফে বলা হয়েছে, যারা আজকে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে পারছেন না তাদের কাছে ক্ষমা চাইছি। আমরা ধীরে ধীরে এবং সাবধানে হোয়াটসঅ্যাপের কাজ শুরু করেছি। ধৈর্য ধরার জন্য আপনাদের প্রত্যেককে অনেক ধন্যবাদ। আমরা এই আপডেট করা চালিয়ে যাবো।

খবরে আরও বলা হয়, সমস্যার কথা স্বীকার করে দুঃখপ্রকাশ করেছে ফেসবুকও। ওয়েব সেবার গতিবিধি সম্পর্কিত খবরাখবর পরিবেশনকারী একটি ওয়েবসাইট ডাউনডিটেক্টর ডট কম জানিয়েছিল, শুধুমাত্র তাদের পোর্টালেই ২০ হাজার ব্যবহারকারী ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রাম নিয়ে অভিযোগ করেছেন।

বিশ্বের সাড়ে ৩ বিলিয়ন মানুষ ব্যবহার করেন ফেসবুক। বন্ধ থাকার কারণে ক্ষতির মুখে পড়েছে অনলাইন নির্ভর কোটি কোটি ডলারের ব্যবসা।

ইউএইচ/

Add Comment

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুনলাইক ফেসবুক
+ +