আপনার ফোনই যখন আপনার বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তি চালায়

বহু মানুষের কাছেই মোবাইল ফোন হচ্ছে এমন এক জানালা – যা দিয়ে তারা বিশ্ব দেখেন। কিন্তু এই মোবাইল ফোনই যদি হয়ে ওঠে আপনার ব্যক্তিগত জীবনে উঁকি দেয়ার জন্য ‘অন্য কারো’ জানালা, তখন কী হবে?

আপনার ফোনই যখন আপনার বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তি চালায়

এটি কি কখনো আপনার মনে আসে যে আপনার পকেটের ভেতরেই আসলে লুকিয়ে আছে এক গুপ্তচর?

বহু দূর থেকেই হ্যাকাররা আপনার মোবাইল ফোনে স্পাইওয়্যার বা গুপ্তচর-প্রযুক্তি ঢুকিয়ে দিয়ে আপনার ফোনে থাকা সব তথ্য পেয়ে যেতে পারে। এরকম একটি অবস্থা কল্পনা করুন – যেখানে এই স্পাইওয়্যার দিয়ে কেউ আপনার ফোনের মাইক্রোফোন থেকে শুরু করে ক্যামেরার নিয়ন্ত্রণ পর্যন্ত নিয়ে নিচ্ছে।

মনে হতে পারে একটি বেশ কষ্টকল্পিত ব্যাপার, কিন্তু আসলে তা নয়।

এরকম সফ্টওয়্যার এরই মধ্যে তৈরি হয়ে গেছে। এই সফ্টওয়্যার এখন ব্যবহার করা হচ্ছে সাংবাদিক, সরকার বিরোধী রাজনৈতিক কর্মী বা আইনজীবীদের গতিবিধির ওপর নজর রাখার জন্য।

কিন্তু কারা এ কাজ করছে এবং কেন?

আমাদের পকেটে থাকা মোবাইল ফোন যে গুপ্তচরে পরিণত না হয়, তা ঠেকানোর জন্য আমরা কী করতে পারি?

বিশ্ববিখ্যাত ফোর্বস ম্যাগাজিনে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, স্মার্টফোনে আড়ি পাতে শাওমি। কোনও ব্যক্তি শাওমির স্মার্টফোনে যে ওয়েব সাইটগুলি দেখেন, তার ওপরে নজর রাখে ওই সংস্থা। সংশ্লিষ্ট তথ্যগুলি পাঠিয়ে দেওয়া হয় আলিবাবা নামে অপর এক চিনা কোম্পানির কাছে।

Add Comment

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুনলাইক ফেসবুক
+ +