ইউটিউব দিচ্ছে ৫০ হাজার ডলার

অন্যান্য প্লাটফর্মের মতো পডকাস্টের ওপর জোর দিতে চাইছে ইউটিউব। গত বছর এ বিভাগে একজন নির্বাহী নিয়োগ দিয়েছে গুগল মালিকানাধীন ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্মটি। জনপ্রিয় পডকাস্ট শোর জন্য ৫০ হাজার ডলার বরাদ্দ করা হচ্ছে। এছাড়া পডকাস্ট নেটওয়ার্কের জন্য বরাদ্দ রাখা হবে ২ থেকে ৩ লাখ ডলার।

পডকাস্ট আয়োজকদের ভিডিও ধারণের জন্য অর্থ দিচ্ছে ইউটিউব। এ প্রক্রিয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পডকাস্ট এপিসোড ভিডিও আকারে ধারণ ও অন্যান্য ভিডিও কনটেন্ট নির্মাণের জন্য ৫০ হাজার থেকে ৩ লাখ ডলার পর্যন্ত অর্থ দিচ্ছে ভিডিও শেয়ারিং সাইটটি।

ইউটিউব দিচ্ছে ৫০ হাজার ডলার

মূলত ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম হলেও বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় পডকাস্টের আয়োজনও করে গুগলের মালিকানাধীন ইউটিউব। সে তালিকায় আছে ‘এইচ৩’ পডকাস্ট, ‘ফুল সেন্ড’ পডকাস্ট ও রোগান পলের নেতৃত্বে ‘ইমপলসিভ’ পডকাস্ট। বিতর্কিত পডকাস্ট সিরিজ ‘জো রোগান এক্সপেরিয়েন্স’-এর পরিধি বাড়াতেও বড় ভূমিকা রেখেছিল ইউটিউব। ২০২০ সালে জো রোগানের আয়োজিত পডকাস্টগুলোর স্বত্ব কিনে নেয় স্পটিফাই।

নিজস্ব প্লাটফর্মের শ্রোতাদের খুশি করার জন্য ইউটিউব যে নিয়মিত ছোট ছোট পদক্ষেপ নিচ্ছে, সাম্প্রতিক ‘বিনিয়োগের’ খবর তারই অংশ।

গত অক্টোবরে কানাডার শ্রোতাদের জন্য অ্যাপ খোলা না রেখেই অডিও শোনার ফিচার চালু করেছে ইউটিউব। তার আগ পর্যন্ত কেবল ‘ইউটিউব প্রিমিয়াম’ গ্রাহকদেরই ফিচারটি ব্যবহারের সুযোগ ছিল। ওই একই সময়ে নিজস্ব পডকাস্ট বিভাগের নেতৃত্ব দিতে কাই চুককে নিয়োগ দিয়েছে ইউটিউব।

ভিডিও পডকাস্ট সেবা আছে স্পটিফাইয়ের। কিন্তু ইউটিউব জনপ্রিয় পডকাস্টের পাশাপাশি ‘এক্সক্লুসিভ’ ভিডিও কনটেন্ট নিজ প্লাটফর্মে আনতে পারলে এতে দর্শক-শ্রোতার জন্য যোগ হবে কনটেন্ট বৈচিত্র্য। ফলে ইউটিউবের সার্বিক সেবাই শ্রোতাদের জন্য আরো আকর্ষণীয় হয়ে উঠতে পারে বলে মনে করছেন প্রযুক্তিসংশ্লিষ্টরা।

Add Comment

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুনলাইক ফেসবুক
+ +