ডেটাবেজ কি? ডেটাবেজ কেন?

আমাদের স্মৃতিতে যা কিছু আছে, সবই ব্রেনের ডেটাবেজে সংরক্ষিত। তেমনি ভাবে কোন অ্যাপ, সফটওয়্যার, ওয়েবপেজের এক বা একাধিক ডেটাবেজ থাকে। যেগুলোতে আমাদের প্রয়োজনীয় তথ্য সংরক্ষিত রাখা হয়।

ডেটাবেজ কি?

Data শব্দটি ল্যাটিন শব্দ, Datum-এর বহুবচন। Datum শব্দের অর্থ হচ্ছে ‘তথ্যের উপাদান’। তথ্যের অন্তর্ভূক্ত ক্ষুদ্রতর অংশসমূহ কে ডেটা বা উপাত্ত বলা হয়।  প্রক্রিয়াকরণ করে কম্পিউটারে ডেটা ইনপুট করা হয়, তারপর কম্পিউটার ডেটাকে প্রসেস করে একটি তথ্যে রূপান্তরিত করে দেয়।

আমরা ওয়েবসাইট বা কোন সফটওয়্যারে যেভাবে তথ্যগুলো দেখতে পাই, কোডংয়ের সাহায্যে ঠিক সেভাবেই কিন্তু লেখা বা ডিজাইন করা হয়। আর এগুলো ডেটাবেজে সংরক্ষিত থাকে। যখন কোন লোক একটি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে, তখন তার সামনে কিছু লেখা, ছবি, গ্রাফিক্স, অডিও, ভিডিও ইত্যাদি তুলে ধরা হয়। এগুলোকে সরাসরি কোন মানুষ সাথে সাথেই সরবারহ করছে না। বরং এই তথ্যগুলো ডেটা আকারে অত্র ওয়েবসাইটের ডেটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমে আগে থেকেই সংরক্ষিত রাখা হয়েছে। এটাই মূলত ডেটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম।

ডেটাবেজ সম্পর্কে আরো কিছু তথ্য:

Data শব্দের অর্থ উপাত্ত এবং Base শব্দের অর্থ ঘাঁটি বা সমাবেশ। পরস্পর সম্পর্কৃত এক বা একাধিক ডেটা টেবিল বা ফাইলের সমষ্টিকে Database বলে। একটি ডেটাবেজে এক বা একাধিক ডেটা টেবিল, কুয়েরি, ফর্ম, ম্যাক্রো, রিপোর্ট, মডিউল ইত্যাদি থাকতে পারে। আর এই সবকিছুর সমন্বয়ে গঠিত ডেটার নাম ডেটাবেজ।

একটি ডেটাবেজে যেমন সুবিশাল তথ্য ভাণ্ডার থাকে তেমনি বৈচিত্র্যময়। ডেটাবেজের সুবিশাল তথ্য ভাণ্ডার থেকে একজন ব্যবহারকারী খুব সহজেই তার জানা অজানা তথ্য খোঁজে পেতে পারে। ডেটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমে অনেকগুলো ডেটাবেজকে একত্রিত করার মাধ্যমে একটি ডেটা ব্যাংক তৈরি করা যায়।

বর্তমানে প্রায় সব প্রতিষ্ঠানেরই ডেটাবেজ আছে। আধুনিক এই তথ্য প্রযুক্তির যুগে সরকারি বেসরকারি সব ধরনের প্রতিষ্ঠানই ডেটাবেজের প্রতি অনেক গুরুত্ব প্রদান করছে। কেননা, একটি প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় তথ্য যদি ডেটাবেজে সংরক্ষণ করা হয়, তবে খুব সহজে অল্প সময়ের মাধ্যমেই তা আয়ত্বে রাখা যায়। এজন্যই আজ প্রায় সবাই ডেটাবেজের প্রতি ঝুঁকছে।

Add Comment

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুনলাইক ফেসবুক
+ +