লাইকি উপার্জনের সুযোগ করে দিলো নির্মাতাদের

জনপ্রিয় শেয়ারিং অ্যাপ ও স্বল্প দৈর্ঘ্যের ভিডিও তৈরির প্লাটর্ফম লাইকি ‘সুপারফলো’ নামে নতুন একটি ফিচার চালু করেছে। কনটেন্ট নির্মাতাদের জন্য পেইড সাবস্ক্রিশন ভিত্তিক এ ফিচারের মাধ্যমে বাংলাদেশের ব্যবহারকারীরা উন্নত মানের কনটেন্ট তৈরির মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

নির্মাতাদের উপার্জনের সুযোগ করে দিলো লাইকি

পৃথিবীজুড়ে সাবস্ক্রিপশন ভিত্তিক সেবা সমূহ ধীরে ধীরে বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করছে। অনেক মানুষ এ ধরনের সেবা গ্রহণও করছেন। স্মার্টফোনের সাশ্রয়ী দামের কারণে ও বিনোদন উপভোগের ট্রেন্ডে ধারাবাহিক পরিবর্তন এবং সোশ্যাল মিডিয়ার অভূতপূর্ব প্রবৃদ্ধির কারণে কনটেন্ট আগের চেয়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

কনটেন্টের প্রসঙ্গ আসলেই লাইকি প্ল্যাটফর্মটি সামনের দিকে চলে আসবে। এ প্ল্যাটফর্মটি সোশ্যাল মিডিয়া ল্যান্ডস্কেপে ইতিবাচক ভূমিকা রাখছে। ইতোমধ্যেই লাখো কনটেন্ট ক্রিয়েটররা লাইকি’র সাথে যুক্ত হয়েছেন।

লাইকি বাংলাদেশও বাংলাদেশি ইনফ্লুয়েন্সার ও কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের অর্থ উপার্জনের প্ল্যাটফর্ম হিসেবে এ ফিচারটি চালু করেছে। অ্যাপে মাসিক সাবস্ক্রিপশন করে অর্থ উপার্জনের জন্য কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য এটি নতুন সাবস্ক্রিপশন ভিত্তিক ফিচার।

সিঙ্গাপুর ভিত্তিক প্ল্যাটফর্ম লাইকি ইতোমধ্যে কনটেন্ট ক্রিয়েটর ও সর্বস্তরের মানুষের হৃদয় জয় করতে পেরেছে। বাংলাদেশে লাইকির বিপুল সংখ্যক গ্রাহক রয়েছে। ব্যবহারকারীদের ভিন্নধর্মী অভিজ্ঞতা প্রদানের সুযোগ করে দিতে লাইকি ‘সুপারফলো’ নামের নতুন এ ফিচারটি নিয়ে এসেছে।

এ নিয়ে লাইকি গ্লোবাল অপারেশনসের হেড গিবসন ইউয়েন বলেন, “সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ধীরে ধীরে সনাতনী মিডিয়ার জায়গা দখল করছে; এ কারণেই কনটেন্ট তৈরির ক্ষেত্রেও পরিবর্তন আসছে এবং দর্শকদের কনটেন্ট উপভোগের রুচিতেও এসেছে বৈচিত্র্য। এ কারণে, কনটেন্ট নির্মাতারাও তাদের ফলোয়ারদের জন্য সৃজনশীল উপায়ে কনটেন্ট তৈরি করছে।

এ ধরনের কনটেন্ট নির্মাতাদের জন্য লাইকি ‘সুপারফলো’ ফিচারটি নিয়ে এসেছে, যাতে তারা তাদের সাফল্যের গল্পগুলো তুলে ধরতে পারেন।”

এ নিয়ে লাইকি’র প্রথম সারির ইনফ্লুয়েন্সার ও প্রথম দিকের কনটেন্ট নির্মাতা ফয়সাল আহমেদ আবীর বলেন, “কনেটেন্ট তৈরির জন্য শ্রম ও নিবেদন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। লাইকি বাংলাদেশ এর ব্যবহারকারীদের জন্য নতুন ফিচার নিয়ে এসেছে যা আমাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দের খবর, এর মাধ্যমে আমরা একইসঙ্গে অর্থ উপার্জন ও কনটেন্ট তৈরি করতে পারবো। এর মাধ্যমে আমরা আমাদের শ্রমের বিনিময়ে অর্থ উপার্জনও করতে পারবে।”

বর্তমানে, এ ফিচারটি গুটিকয়েক কনটেন্ট তৈরিকারীরা ব্যবহার করতে পারবেন এবং খুব তাড়াতাড়ি এটি আরো কনটেন্ট নির্মাণকারীরা ব্যবহার করতে পারবেন। কনটেন্টের মাধ্যমে অর্থ উপার্জনের জন্য বিবেচিত হওয়ার পর, লাইকিতে কনটেন্ট নির্মাণকারীরা তাদের আবেদনপত্র জমা দিতে পারবেন এবং লাইকি’র নীতি অনুযায়ী তাদের কাঙ্খিত মাসিক সাবস্ক্রিপশন ফি র্নিধারণ করতে পারবেন।

আবেদনপত্র জমা দিয়ে তা অনুমোদন লাভের পর কনটেন্ট নির্মাণকারীরা বিশেষ ও অর্থ প্রাপ্তির কনটেন্টগুলো তাদের সুপারফলোয়ারদের জন্য ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জমা দিতে পারবেন। আরো সুপারফলোয়ারদের আকৃষ্ট করার জন্য কনটেন্ট তৈরিকারীদের সুন্দর করে মেসেজ উপস্থাপন, আকর্ষণীয় ভিডিও নির্বাচন এবং সে অনুযায়ী প্রোফাইল ডিজাইন করতেও উৎসাহিত করা হয়েছে।

Add Comment

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুনলাইক ফেসবুক
+ +