আইফোন ১৩’র কয়েকটি অজানা ফিচার

আইফোন ১৩ সিরিজের ফোনে কয়েকটি চমকপ্রদ ফিচার রয়েছে। তবে বেশিরভাগ ব্যবহারকারীই এসব ফিচারের কথা জানেন না। তাহলে চলুন জেনেই আইফোন ১৩ সিরিজের কয়েকটি অজানা ফিচার সম্পর্কে-

আইফোন ১৩’র কয়েকটি অজানা ফিচার

রিচেবিলিটি

আইফোন ১৩-এ রয়েছে রিচেবিলিটি নামের একটি ফিচার। যে সব ব্যবহারকারীর আঙুল খুব ছোট, তাদের জন্য অত্যন্ত সহায়ক এই রিচেবিলিটি ফিচারটি। এমনকি এই ফিচার ব্যবহার করে আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্সও অপারেটর করা খুব সহজ হবে।

ড্র্যাগ অ্যান্ড ড্রপ

অ্যান্ড্রয়েডের থেকে শত গুণে ভাল আইফোনের ড্র্যাগ অ্যান্ড ড্রপ ফিচারটি। এই ফিচারের সাহায্যে ব্যবহারকারীরা একটি অ্যাপ থেকে আরেকটি অ্যাপে খুব সহজেই ছবি বা টেক্সট ড্র্যাগ করতে পারেন। ফলে ফিচারটি ব্যবহারকারীদের সময় বাঁচাবে।

লাইভ টেক্সট ফিচার

এটি অপটিক্যাল ক্যারেক্টার রিকগনিশন প্রযুক্তি ব্যবহার করে ছবি থেকে টেক্সট এক্স-ট্র্যাক্ট করার মাধ্যমে কাজ করে। এই ফিচারের সাহায্যে খুব সহজেই একটি ছবি স্ক্যান করে সেখান থেকে টেক্সট পেতে পারেন। তারপরে সেই টেক্সট আপনি চাইলে যেকোনো অ্যাপে পেস্ট করতে পারেন।

ব্যাক ট্যাপ জেসচার

ব্যাক ট্যাপ জেসচারের মাধ্যমে একাধিক ফিচার্স অ্যাক্সেস করতে পারবেন আইফোন ১৩ ব্যবহারকারীরা। তার জন্য ফোনের স্ক্রিনও ট্যাপ করার প্রয়োজন পড়বে না। আইফোন ১৩ ব্যবহারকারীরা স্ক্রিনশট নিতে পারবেন, টর্চ টার্ন অফ ও অন করতে পারবেন। একই সঙ্গে আবার ফোনের ব্যাক প্যানেলে সামান্য ট্যাপ করেই ক্যামেরা ওপেন করতে পারবেন।

ব্যাকগ্রাউন্ড সাউন্ড কম করা

ফিচারটি গ্রাহকের স্ট্রেস কমাতে পারে। একাধিক রিসার্চ থেকে এমনই তথ্য উঠে এসেছে। ডিভাইসের অ্যাক্সেসিবিলিটি সেটিংস থেকেই এই ফিচারটি অ্যাক্টিভেট করা যেতে পারে।

ক্যাপশনস ফিচার

ছবি ও ভিডিওতে ক্যাপশন দেওয়ার মতোও একটি চমৎকার ফিচার রয়েছে আইফোনের ঝুলিতে। তার জন্য ব্যবহারকারীদের ছবি বা ভিডিওতে সোয়াইপ করলেই চলে যাবে। ছবি বা ভিডিওতে টেক্সট অ্যাড করার জন্য আপনাকে অন্য কোনও অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে না।

অ্যাপ লুকিয়ে রাখা

আইফোন ১৩ ব্যবহারকারীরা খুব সহজেই যেকোনো অ্যাপ লুকিয়ে রাখতে পারেন। তার জন্য আপনাকে আইফোন ১৩’র রিমুভ অ্যাপ অপশনে ক্লিক করতে হবে এবং তার পরে মুভ টু অ্যাপ লাইব্রেরি অপশনটি সিলেক্ট করতে হবে।

Add Comment

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুনলাইক ফেসবুক
+ +