ফোনে ব্যক্তিগত অ্যাপ লুকিয়ে রাখবেন যেভাবে

কাজের সুবিধায় স্মার্টফোনে আমরা বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ ব্যবহার করে থাকি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন ব্যাংকের অ্যাপ ইনস্টল করে রাখা হয় ফোনে। যা একান্তই ব্যক্তিগত। ঘরের মানুষের কাছে অনেকেই প্রাইভেসি মেইন্টেইন করেন না। এটা কিন্তু একেবারেই উচিত নয়।

ধরুন, আপনি আপনার স্মার্টফোনে ব্যক্তিগত নোটস কিংবা ব্যাংক ডিটেলস, কার্ড ডিটেলস সেভ করে রাখেন। যখন তখন যে কেউ আপনার ফোন নিয়ে ঘাঁটাঘাটি করছে। এতে খুব সহজেই আপনার এসব ব্যক্তিগত তথ্য বেহাত হয়ে যেতে পারে। এজন্য ব্যক্তিগত অ্যাপ লুকিয়ে রাখতে পারেন সুরক্ষিত থাকতে।

ফোনে ব্যক্তিগত অ্যাপ লুকিয়ে রাখবেন যেভাবে

থার্ড পার্টি কোনো অ্যাপ ব্যবহার করতে হবে না। কমবেশি এখন সব স্মার্টফোনেই অ্যাপ হাইড করার ফিচার থাকে।

চলুন জেনে নেওয়া যাক আপনার ফোনে এই কাজটি কীভাবে করবেন-

শাওমি, রেডমি, পোকো যারা ব্যবহার করেন

শাওমি, রেডমি, পোকো যারা ব্যবহার করেন তাদের ক্ষেত্রে একটু বেশি পরিশ্রম করতে হতে পারে। প্রথমে সেটিংস অপশনে গিয়ে সেখান থেকে অ্যাপস অপশনে যান। এরপর সেখান থেকে অ্যাপ লক অপশনে ক্লিক করুন। সেখানেই হিডেন অ্যাপ নামে একটি ট্যাব দেখতে পাবেন। ওই অপশনে ক্লিক করে নিজের প্রয়োজনীয় অ্যাপগুলো হাইড করে রাখতে পারেন।

ওয়ানপ্লাস ফোনের ক্ষেত্রে

ওয়ানপ্লাস ফোনের ক্ষেত্রে প্রথমেই আপনার হোম স্ক্রিনে দুটি আঙুল দিয়ে স্ট্রেচ করুন। সঙ্গে সঙ্গে ফোনের হিডেন স্পেস খুলে যাবে। সেখানে একটি প্লাস (+) সাইন দেখা যাবে। সেখানে ক্লিক করলেই ফোনে থাকা যাবতীয় অ্যাপ খুলে যাবে। এরপর যে অ্যাপগুলো হাইড করতে চাইছেন সেগুলোর উপর ক্লিক করুন। একইভাবে প্রয়োজনীয় অ্যাপ আনহাইডও করতে পারবেন।

স্যামসাংয়ের ক্ষেত্রে

স্যামসাংয়ের ক্ষেত্রে ব্যবহারকারীকে কোনো স্ট্রেচ করার দরকার নেই। শুধুমাত্র হোম স্ক্রিনে লং প্রেস করতে হবে। এরপর হোম স্ক্রিন সেটিংস অপশনে ক্লিক করতে হবে। সেখান থেকে হাইড অ্যাপ অপশনে ক্লিক করুন।

রিয়েলমি

> যারা রিয়েলমি ব্যবহার করছেন তারা প্রথমে সেটিংসে যান। সেখানে থাকা সিকিওরিটি অপশন ক্লিক করুন। এরপর অ্যাপ এনক্রিপশন (App Encryption) নামে একটি অপশন বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর প্রাইভেসি পাসকোড সেট করার দরকার পড়বে। পাসকোড সেট করে যে অ্যাপগুলো হাইড করতে চান সেগুলো সিলেক্ট করলেই হয়ে যাবে।

Add Comment

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুনলাইক ফেসবুক
+ +